১১:০৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নাঙ্গলকোটে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণের অভিযোগ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:০২:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ৮৭ দেখেছেন

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি-
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নের জোড্ডা গ্রামের মিয়াজি বাড়ির মৃত মাস্টার ছেরাজুল হকের পুত্র সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজীর বিরুদ্ধে দেয়াল নির্মাণ করে তার ৩ ভাইয়ের পরিবারের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মামলা ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জোড্ডা গ্রামের মৃত ছেরাজুল হকের রেখে যাওয়া জোড্ডা মৌজায় ৫ একর ২১ শতক সম্পত্তির মধ্যে বসত বাড়িতে মোট ৫৮ শতক সম্পত্তি হিস্যা অনুযায়ী ৪ ভাইয়ের মধ্যে সমহারে বন্টন হওয়ার কথা। ৫৮ শতক বাড়ির মধ্যে ৪ শতক এজমালি রাস্তার জায়গা বাদ দিয়ে প্রতিজন সাড়ে ১৩ শতক করে পাওয়ার কথা। কিন্তু আনোয়ার হোসেন মিয়াজী ওয়ারিশ সূত্রে বাড়ির সাড়ে ১৩ শতক ভোগ দখল করার পরও ৪ ভাইয়ের এজমালি চলাচলের ৪ শতক রাস্তায় দেয়াল নির্মাণ করে অন্য ৩ ভাইয়ের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এবং বাড়ির সামনে রাস্তা সংলগ্ন মৃত ডাক্তার একরামুল হোসেনের মালিকানাধীন সাড়ে ৫ শতক জমি দখল করে রাখে।

চলাচলের রাস্তা বন্ধের বিষয়ে প্রতিবাদ করলে আনোয়ার হোসেন মিয়াজী তার বড় ভাই মৃত ডাক্তার একরামুল হোসেনর শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলে সাখাওয়াত হোসেন ও তার স্ত্রী আঞ্জুমানকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ ও করেন ভুক্তভোগী পরিবার।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জাকির হোসেন ও শাখাওয়াত হোসেন বাদী হয়ে কুমিল্লার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গত ১১ সেপ্টেম্বর পি,আর ৫৮০/২৩ এবং পি,আর ৫৭৪/২৩ পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন।

চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় শারীরিক প্রতিবন্ধী সহ ৩ পরিবারের লোকজন মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

এ বিষয়ে আনোয়ার হোসেন মিয়াজি বলেন, ওরা সবাই চারদিকে কবলা সৃষ্টি করে আমাকে আটকে রাখার চেষ্টা করছে। রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা ওরাই আগে ব্লক করে রেখেছে। ওরা যেটা ব্লক করেছে, আমি ১০ ফুট ছেড়ে কাজ করছি। আমি আমার জায়গায় দেয়াল নির্মাণ করছি। এটা নিয়ে বসা হবে।

জোড্ডা পূর্ব ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আফসার বলেন, বিষয়টি তারা আমাকে জানিয়েছে। আমি ঘটনাস্থলে যাইনি। লোক মারফত জানলাম, তারা ৪ ভাইয়ের মধ্যে দুই ভাই উত্তর অংশে এবং দুই ভাই দক্ষিণ অংশে রাস্তার পাশে বসবাস করার কথা ছিল। উত্তর অংশে যে দুই ভাই থাকবে তারা পূর্বে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যৌথ চলাচলের রাস্তা ব্যবহার করার কথা। কিন্তু আনোয়ার হোসেন মিয়াজি দেয়াল নির্মাণ করে যৌথ চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। যাতে তারা বাড়ি থেকে বের হতে না পারে।

নাঙ্গলকোট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, আমার কাছে রাস্তা বন্ধের কোন অভিযোগ নেই, তবে তাদের মধ্যে পারিবারিক জায়গা নিয়ে বিরোধ রয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন।

লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

নাঙ্গলকোটে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৯:০২:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি-
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নের জোড্ডা গ্রামের মিয়াজি বাড়ির মৃত মাস্টার ছেরাজুল হকের পুত্র সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজীর বিরুদ্ধে দেয়াল নির্মাণ করে তার ৩ ভাইয়ের পরিবারের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মামলা ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জোড্ডা গ্রামের মৃত ছেরাজুল হকের রেখে যাওয়া জোড্ডা মৌজায় ৫ একর ২১ শতক সম্পত্তির মধ্যে বসত বাড়িতে মোট ৫৮ শতক সম্পত্তি হিস্যা অনুযায়ী ৪ ভাইয়ের মধ্যে সমহারে বন্টন হওয়ার কথা। ৫৮ শতক বাড়ির মধ্যে ৪ শতক এজমালি রাস্তার জায়গা বাদ দিয়ে প্রতিজন সাড়ে ১৩ শতক করে পাওয়ার কথা। কিন্তু আনোয়ার হোসেন মিয়াজী ওয়ারিশ সূত্রে বাড়ির সাড়ে ১৩ শতক ভোগ দখল করার পরও ৪ ভাইয়ের এজমালি চলাচলের ৪ শতক রাস্তায় দেয়াল নির্মাণ করে অন্য ৩ ভাইয়ের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এবং বাড়ির সামনে রাস্তা সংলগ্ন মৃত ডাক্তার একরামুল হোসেনের মালিকানাধীন সাড়ে ৫ শতক জমি দখল করে রাখে।

চলাচলের রাস্তা বন্ধের বিষয়ে প্রতিবাদ করলে আনোয়ার হোসেন মিয়াজী তার বড় ভাই মৃত ডাক্তার একরামুল হোসেনর শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলে সাখাওয়াত হোসেন ও তার স্ত্রী আঞ্জুমানকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ ও করেন ভুক্তভোগী পরিবার।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জাকির হোসেন ও শাখাওয়াত হোসেন বাদী হয়ে কুমিল্লার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গত ১১ সেপ্টেম্বর পি,আর ৫৮০/২৩ এবং পি,আর ৫৭৪/২৩ পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন।

চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় শারীরিক প্রতিবন্ধী সহ ৩ পরিবারের লোকজন মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

এ বিষয়ে আনোয়ার হোসেন মিয়াজি বলেন, ওরা সবাই চারদিকে কবলা সৃষ্টি করে আমাকে আটকে রাখার চেষ্টা করছে। রাস্তা বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা ওরাই আগে ব্লক করে রেখেছে। ওরা যেটা ব্লক করেছে, আমি ১০ ফুট ছেড়ে কাজ করছি। আমি আমার জায়গায় দেয়াল নির্মাণ করছি। এটা নিয়ে বসা হবে।

জোড্ডা পূর্ব ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আফসার বলেন, বিষয়টি তারা আমাকে জানিয়েছে। আমি ঘটনাস্থলে যাইনি। লোক মারফত জানলাম, তারা ৪ ভাইয়ের মধ্যে দুই ভাই উত্তর অংশে এবং দুই ভাই দক্ষিণ অংশে রাস্তার পাশে বসবাস করার কথা ছিল। উত্তর অংশে যে দুই ভাই থাকবে তারা পূর্বে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যৌথ চলাচলের রাস্তা ব্যবহার করার কথা। কিন্তু আনোয়ার হোসেন মিয়াজি দেয়াল নির্মাণ করে যৌথ চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। যাতে তারা বাড়ি থেকে বের হতে না পারে।

নাঙ্গলকোট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, আমার কাছে রাস্তা বন্ধের কোন অভিযোগ নেই, তবে তাদের মধ্যে পারিবারিক জায়গা নিয়ে বিরোধ রয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন।