০৪:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন পারাপারের সময়

নাঙ্গলকোটে অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনের কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ট্রেনের ধাক্কায় সোহরাব হোসেন ওরফে মামুন (২৫) নামের এক ফল ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার বান্নগরের অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ে চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোহরাব হোসেন নাঙ্গলকোট উপজেলার মক্রবপুর ইউনিয়নের বান্নগর খলিফা বাড়ির আবদুল গফুরের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সোহরাব নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলে করে স্থানীয় মক্রবপুর বাজারে তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যাচ্ছিলেন। অরক্ষিত বান্নগর রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগ্রামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন তাঁকে ধাক্কা দেয়। এলাকাবাসী তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

বান্নগর গ্রামের শিক্ষক ছায়েদুল হক (৬৫) বলেন, বান্নগরের এই অরক্ষিত রেলক্রসিং পথচারীদের মৃত্যুর ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণভাবে এ রেলক্রসিং পার হতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে এলাকাবাসী। এখানে একটি ব্যারিকেড দেওয়ার জন্য রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার আবেদন করা হয়েছে।

নাঙ্গলকোট রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার জামাল উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রেলক্রসিংয়ে ব্যারিকেড দেওয়ার ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

লাকসাম রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন খন্দকার বলেন, লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন পারাপারের সময়

নাঙ্গলকোটে অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

আপডেট সময় : ০৭:০৭:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনের কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ট্রেনের ধাক্কায় সোহরাব হোসেন ওরফে মামুন (২৫) নামের এক ফল ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার বান্নগরের অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ে চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোহরাব হোসেন নাঙ্গলকোট উপজেলার মক্রবপুর ইউনিয়নের বান্নগর খলিফা বাড়ির আবদুল গফুরের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সোহরাব নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলে করে স্থানীয় মক্রবপুর বাজারে তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যাচ্ছিলেন। অরক্ষিত বান্নগর রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরগ্রামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন তাঁকে ধাক্কা দেয়। এলাকাবাসী তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

বান্নগর গ্রামের শিক্ষক ছায়েদুল হক (৬৫) বলেন, বান্নগরের এই অরক্ষিত রেলক্রসিং পথচারীদের মৃত্যুর ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণভাবে এ রেলক্রসিং পার হতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে এলাকাবাসী। এখানে একটি ব্যারিকেড দেওয়ার জন্য রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার আবেদন করা হয়েছে।

নাঙ্গলকোট রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার জামাল উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রেলক্রসিংয়ে ব্যারিকেড দেওয়ার ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

লাকসাম রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন খন্দকার বলেন, লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।