০৪:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪, ২৮ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
৬ উইকেটে হেরেছে মুম্বাই

আইপিএলের ‘ক্লাসিকো’তে চেন্নাইয়ের কাছে পাত্তাই পেল না মুম্বাই

  • খেলা ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:১২:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩
  • ৮৯ দেখেছেন

আইপিএল ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দুই দল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও চেন্নাই সুপার কিংস। টুর্নামেন্টের এখন পর্যন্ত হওয়া ১৫ আসরের ৯টিই জিতেছে এই দুই দল। সাফল্যে অন্যদের তুলনায় বেশ এগিয়ে থাকায় দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে থাকে বাড়তি রোমাঞ্চ।

তবে আজকের ম্যাচে তেমন কিছুই দেখা গেল না। ‘আইপিএল ক্লাসিকো’তে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইয়ের কাছে পাত্তাই পায়নি মুম্বাই। চেন্নাইয়ের কাছে তারা হেরেছে ৬ উইকেটে।

টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে মাথিশা পাতিরানা ও দীপক চাহারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে অসহায় হয়ে পড়া মুম্বাই তুলতে পারে ১৩৯ রান। চেন্নাই জয় পেয়েছে ৬ উইকেট আর ১৪ বল হাতে রেখে। চেন্নাইয়ের হয়ে ৪ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছে পাতিরানা। ইনিংসের ১৩তম ওভারে বোলিংয়ে আসা এই পেসার ৪ ওভারের স্পেলে একটিও বাউন্ডারি দেননি।

১৪০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথম উইকেট জুটিতে ৪ ওভারে ৪৬ রান তুলে কাজটা সহজ করে দেন রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও ডেভন কনওয়ে। রুতুরাজ ১৬ বলে ৩০ রান করে পীযুশ চাওলার বলে আউট হলেও চেন্নাইয়ের রানের গতি কমেনি।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে আসা অজিঙ্কা রাহানে করেন ২১ রান। তিনিও ফেরেন চাওলার বলে। রাহানের উইকেটটি চলতি মৌসুমে চাওলার ১৭তম। কনওয়ে ৪ চারে ৪২ বলে করেছেন ৪৪ রান। এরপর শিবম দুবের ২৬ রানে সহজ জয় পায় চেন্নাই। এই জয়ে ১১ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে চেন্নাই, মুম্বাই এক ম্যাচ কম খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে আছে ষষ্ঠ স্থানে।

সর্বশেষ দুই ম্যাচে দুই শর বেশি রান তাড়া করে জেতা মুম্বাই এদিন শুরু থেকেই ধুকেছে। সর্বশেষ ম্যাচে পাঞ্জাবের বিপক্ষে শূন্য রানে আউট হওয়ার পর অধিনায়ক রোহিত এই ম্যাচেও রানের খাতা খুলতে পারেননি। আজও শুন্য রানে আউট হওয়ায় একটি বিব্রতকর রেকর্ডে নামও লিখিয়েছেন মুম্বাই অধিনায়ক। আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ১৬ বার শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ড এখন রোহিতের।

সর্বশেষ চার ইনিংসে রোহিত শর্মার রান—৩, ২, ০, ০। আজ চেন্নাইয়ের বিপক্ষে পছন্দের ওপেনিং পজিশনও ছাড়লেন। তাতেও ব্যাটে রান আসেনি। ২০১৮ আইপিএল মৌসুমের পর এই প্রথমবার ওপেনিংয়ে খেলেননি রোহিত।

রোহিত যেমন ব্যর্থ হয়েছেন, তেমনি ব্যর্থ হয়েছেন ইশান কিষান–ক্যামেরন গ্রিনও। প্রথম ৩ ওভারের মধ্যে তিন উইকেট হারানো মুম্বাই ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে সূর্যকুমার যাদব ও নেহাল ওয়াহধেরার ব্যাটে। তবে ছন্দে ফেরা সূর্য আজ ইনিংস বড় করতে পারেননি। রবীন্দ্র জাদেজার বলে বোল্ড হওয়ার আগে এই ব্যাটসম্যান করেছেন ২৬ রান।

মুম্বাই ব্যাটসম্যানরা সাবলীল ক্রিকেটটা খেলতে এতটাই হিমশিম খেয়েছে যে প্রথম ছক্কা দেখতে দর্শকদের অপেক্ষা করতে হয়েচে ১৬তম ওভার পর্যন্ত। একপাশ আগলে রেখে আইপিএলে প্রথম ফিফটির দেখা পেয়েছেন তরুণ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ওয়াহধেরা। মূলত তাঁর ৫১ বলে ৬৪ রানের ইনিংসেই ১৩৯ রানের সংগ্রহ পায় রোহিতের দল। তুষার দেশপান্ডে ও দীপক চাহার নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।

ট্যাগ :
লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

৬ উইকেটে হেরেছে মুম্বাই

আইপিএলের ‘ক্লাসিকো’তে চেন্নাইয়ের কাছে পাত্তাই পেল না মুম্বাই

আপডেট সময় : ০৮:১২:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩

আইপিএল ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দুই দল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও চেন্নাই সুপার কিংস। টুর্নামেন্টের এখন পর্যন্ত হওয়া ১৫ আসরের ৯টিই জিতেছে এই দুই দল। সাফল্যে অন্যদের তুলনায় বেশ এগিয়ে থাকায় দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে থাকে বাড়তি রোমাঞ্চ।

তবে আজকের ম্যাচে তেমন কিছুই দেখা গেল না। ‘আইপিএল ক্লাসিকো’তে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইয়ের কাছে পাত্তাই পায়নি মুম্বাই। চেন্নাইয়ের কাছে তারা হেরেছে ৬ উইকেটে।

টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে মাথিশা পাতিরানা ও দীপক চাহারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে অসহায় হয়ে পড়া মুম্বাই তুলতে পারে ১৩৯ রান। চেন্নাই জয় পেয়েছে ৬ উইকেট আর ১৪ বল হাতে রেখে। চেন্নাইয়ের হয়ে ৪ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছে পাতিরানা। ইনিংসের ১৩তম ওভারে বোলিংয়ে আসা এই পেসার ৪ ওভারের স্পেলে একটিও বাউন্ডারি দেননি।

১৪০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথম উইকেট জুটিতে ৪ ওভারে ৪৬ রান তুলে কাজটা সহজ করে দেন রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও ডেভন কনওয়ে। রুতুরাজ ১৬ বলে ৩০ রান করে পীযুশ চাওলার বলে আউট হলেও চেন্নাইয়ের রানের গতি কমেনি।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে আসা অজিঙ্কা রাহানে করেন ২১ রান। তিনিও ফেরেন চাওলার বলে। রাহানের উইকেটটি চলতি মৌসুমে চাওলার ১৭তম। কনওয়ে ৪ চারে ৪২ বলে করেছেন ৪৪ রান। এরপর শিবম দুবের ২৬ রানে সহজ জয় পায় চেন্নাই। এই জয়ে ১১ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে চেন্নাই, মুম্বাই এক ম্যাচ কম খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে আছে ষষ্ঠ স্থানে।

সর্বশেষ দুই ম্যাচে দুই শর বেশি রান তাড়া করে জেতা মুম্বাই এদিন শুরু থেকেই ধুকেছে। সর্বশেষ ম্যাচে পাঞ্জাবের বিপক্ষে শূন্য রানে আউট হওয়ার পর অধিনায়ক রোহিত এই ম্যাচেও রানের খাতা খুলতে পারেননি। আজও শুন্য রানে আউট হওয়ায় একটি বিব্রতকর রেকর্ডে নামও লিখিয়েছেন মুম্বাই অধিনায়ক। আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ১৬ বার শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ড এখন রোহিতের।

সর্বশেষ চার ইনিংসে রোহিত শর্মার রান—৩, ২, ০, ০। আজ চেন্নাইয়ের বিপক্ষে পছন্দের ওপেনিং পজিশনও ছাড়লেন। তাতেও ব্যাটে রান আসেনি। ২০১৮ আইপিএল মৌসুমের পর এই প্রথমবার ওপেনিংয়ে খেলেননি রোহিত।

রোহিত যেমন ব্যর্থ হয়েছেন, তেমনি ব্যর্থ হয়েছেন ইশান কিষান–ক্যামেরন গ্রিনও। প্রথম ৩ ওভারের মধ্যে তিন উইকেট হারানো মুম্বাই ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে সূর্যকুমার যাদব ও নেহাল ওয়াহধেরার ব্যাটে। তবে ছন্দে ফেরা সূর্য আজ ইনিংস বড় করতে পারেননি। রবীন্দ্র জাদেজার বলে বোল্ড হওয়ার আগে এই ব্যাটসম্যান করেছেন ২৬ রান।

মুম্বাই ব্যাটসম্যানরা সাবলীল ক্রিকেটটা খেলতে এতটাই হিমশিম খেয়েছে যে প্রথম ছক্কা দেখতে দর্শকদের অপেক্ষা করতে হয়েচে ১৬তম ওভার পর্যন্ত। একপাশ আগলে রেখে আইপিএলে প্রথম ফিফটির দেখা পেয়েছেন তরুণ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ওয়াহধেরা। মূলত তাঁর ৫১ বলে ৬৪ রানের ইনিংসেই ১৩৯ রানের সংগ্রহ পায় রোহিতের দল। তুষার দেশপান্ডে ও দীপক চাহার নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।