০৯:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঠিকাদারদের কাছ থেকে টাকা নিই না-লোটাস কামাল

‘আমি দুর্নীতি করি না, কন্ট্রাকটরদের (ঠিকাদার) কাছ থেকে টাকা নিই না। আমি চাই নাঙ্গলকোটের মানুষের সম্মান ও ভালোবাসা চাই।’

শনিবার সন্ধ্যায় নাঙ্গলকোট উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী কুমিল্লা-১০ (নাঙ্গলকোট, সদর দক্ষিণ ও লালমাই) আসনের সাংসদ আ হ ম মুস্তফা কামাল।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘২০০১ সালের নির্বাচনের পর আমার ওপর অত্যাচার হয়েছে। আমার ভাইয়ের দাঁত ফেলে দেওয়া হয়েছে। তখন উত্তরে (সদর দক্ষিণ ও লালমাই উপজেলা) যা হয়েছে, দক্ষিণে (নাঙ্গলকোট উপজেলা) তা হয়েছে। হাজারো দলীয় নেতা-কর্মী ও নিরীহ মানুষের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এই ধরনের অপরাজনীতি আমাদের সময়ে হচ্ছে না। আমরা বাংলাদেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছি। ভবিষ্যতে ভারত ও তাইওয়ানকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ। তাই আবারও উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত রাখতে হলে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে হবে।’

নাঙ্গলকোট থানার পেছনে অবস্থিত হেলিপ্যাড এলাকায় উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মো. রফিকুল হোসেনের সভাপতিত্বে ইফতার অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন কুমিল্লার সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মন্ত্রীর বড় ভাই আবদুল হামিদ, নাঙ্গলকোট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন কালু, নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দাউদ হোসেন চৌধুরী, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ুব, নাঙ্গলকোট পৌরসভার মেয়র মো. আবদুল মালেক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যসচিব আবু ইউসুফ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আবু ইউসুফ ভূঁইয়া, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছরিন আক্তার মুন্নী প্রমুখ।

লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

ঠিকাদারদের কাছ থেকে টাকা নিই না-লোটাস কামাল

আপডেট সময় : ০৫:৫৩:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ মে ২০১১

‘আমি দুর্নীতি করি না, কন্ট্রাকটরদের (ঠিকাদার) কাছ থেকে টাকা নিই না। আমি চাই নাঙ্গলকোটের মানুষের সম্মান ও ভালোবাসা চাই।’

শনিবার সন্ধ্যায় নাঙ্গলকোট উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী কুমিল্লা-১০ (নাঙ্গলকোট, সদর দক্ষিণ ও লালমাই) আসনের সাংসদ আ হ ম মুস্তফা কামাল।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘২০০১ সালের নির্বাচনের পর আমার ওপর অত্যাচার হয়েছে। আমার ভাইয়ের দাঁত ফেলে দেওয়া হয়েছে। তখন উত্তরে (সদর দক্ষিণ ও লালমাই উপজেলা) যা হয়েছে, দক্ষিণে (নাঙ্গলকোট উপজেলা) তা হয়েছে। হাজারো দলীয় নেতা-কর্মী ও নিরীহ মানুষের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এই ধরনের অপরাজনীতি আমাদের সময়ে হচ্ছে না। আমরা বাংলাদেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছি। ভবিষ্যতে ভারত ও তাইওয়ানকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ। তাই আবারও উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত রাখতে হলে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে হবে।’

নাঙ্গলকোট থানার পেছনে অবস্থিত হেলিপ্যাড এলাকায় উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মো. রফিকুল হোসেনের সভাপতিত্বে ইফতার অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন কুমিল্লার সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মন্ত্রীর বড় ভাই আবদুল হামিদ, নাঙ্গলকোট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন কালু, নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দাউদ হোসেন চৌধুরী, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ুব, নাঙ্গলকোট পৌরসভার মেয়র মো. আবদুল মালেক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যসচিব আবু ইউসুফ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আবু ইউসুফ ভূঁইয়া, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছরিন আক্তার মুন্নী প্রমুখ।