০৯:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জোর পূর্বক জমি দখলের চেষ্টা

নাঙ্গলকোটে বীরমুক্তিযোদ্ধার গাছ কর্তন

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের উত্তর সাতবাড়িয়া গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেমের জমির পাড়ের গাছ একই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম ও শাহাদাত হোসেন কামাল পক্ষ হয়ে মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র বাহার মিয়া সওদাগর জোর পূর্বক দখল করার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেম নাঙ্গলকোট থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার উত্তর সাতবাড়িয়া গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেমের ১২ শতক সম্পত্তি ৫৩ বছর যাবৎ তার দখলে আছে। এবং ওই সম্পত্তি বন্টননামা দলিল সূত্রেও তিনি মালিক রয়েছেন। কিন্তু একই গ্রামের মৃত মীর হোসেনের পুত্র জাহাঙ্গীর আলম ও শাহাদাত হোসেন কামাল ওই সম্পত্তি দাবি করে আসছে।

এই নিয়ে গত ৮ মে সোমবার ওই জমির পাড়ে থাকা বিভিন্ন ধরনের ছোট বড় অসংখ্য গাছ একই গ্রামের মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র বাহার মিয়া সওদাগর নেতৃত্বে ৩০/৪০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গাছ গুলো কেটে ফেলে এবং ওই জমির কিছু অংশে মাটি ভরাট করে, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলার চেষ্টা করে। গত শনিবার ওই জায়গায় জোর পূর্বক দখলের জন্য ৩০/৪০ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী উপস্থিতিতে জাহাঙ্গীর আহম্মদ ও শাহাদাত হোসেন কামালের পক্ষ হয়ে একই গ্রামের বাহার মিয়া ওই ভরাটকৃত জায়গায় দেয়াল নির্মাণ করার চেষ্টা করে। এ নিয়ে বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেম থানায় লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

ইউপি সদস্য দাউদ হোসেন বলেন, আমি কাজ স্থগিত রাখার জন্য বলেছি, জমির সকল কাগজপত্র নিয়ে বসে মিমাংসা করার জন্য বলেছি।
নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

জোর পূর্বক জমি দখলের চেষ্টা

নাঙ্গলকোটে বীরমুক্তিযোদ্ধার গাছ কর্তন

আপডেট সময় : ০৯:৪৮:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের উত্তর সাতবাড়িয়া গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেমের জমির পাড়ের গাছ একই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম ও শাহাদাত হোসেন কামাল পক্ষ হয়ে মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র বাহার মিয়া সওদাগর জোর পূর্বক দখল করার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেম নাঙ্গলকোট থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার উত্তর সাতবাড়িয়া গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেমের ১২ শতক সম্পত্তি ৫৩ বছর যাবৎ তার দখলে আছে। এবং ওই সম্পত্তি বন্টননামা দলিল সূত্রেও তিনি মালিক রয়েছেন। কিন্তু একই গ্রামের মৃত মীর হোসেনের পুত্র জাহাঙ্গীর আলম ও শাহাদাত হোসেন কামাল ওই সম্পত্তি দাবি করে আসছে।

এই নিয়ে গত ৮ মে সোমবার ওই জমির পাড়ে থাকা বিভিন্ন ধরনের ছোট বড় অসংখ্য গাছ একই গ্রামের মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র বাহার মিয়া সওদাগর নেতৃত্বে ৩০/৪০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গাছ গুলো কেটে ফেলে এবং ওই জমির কিছু অংশে মাটি ভরাট করে, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলার চেষ্টা করে। গত শনিবার ওই জায়গায় জোর পূর্বক দখলের জন্য ৩০/৪০ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী উপস্থিতিতে জাহাঙ্গীর আহম্মদ ও শাহাদাত হোসেন কামালের পক্ষ হয়ে একই গ্রামের বাহার মিয়া ওই ভরাটকৃত জায়গায় দেয়াল নির্মাণ করার চেষ্টা করে। এ নিয়ে বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা: আবুল হাসেম থানায় লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

ইউপি সদস্য দাউদ হোসেন বলেন, আমি কাজ স্থগিত রাখার জন্য বলেছি, জমির সকল কাগজপত্র নিয়ে বসে মিমাংসা করার জন্য বলেছি।
নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।