০৯:৪২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাশিয়ার বিজয়ের মধ্য দিয়ে এ যুদ্ধের শেষ হবে: পুতিন

রেড স্কয়ারে এই বিজয় দিবসের প্যারেডে জড়ো হওয়া সেনাদের উদ্দেশে ভাষণ দেন ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি: রয়টার্স

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইউক্রেন বিষয়ে রুশরা পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে এক ‘পবিত্র’ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এই লড়াইয়ে রুশরা ঐক্যবদ্ধ। বিজয়ের মধ্য দিয়ে এ যুদ্ধের শেষ হবে। তিনি অভিযোগ করেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নাৎসিদের বিরুদ্ধে সোভিয়েতের বিজয়কে ভুলে গেছে।

আজ মঙ্গলবার রেড স্কয়ারে এই বিজয় দিবসের প্যারেডে জড়ো হওয়া সেনাদের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ৭০ বছর বয়সী পুতিন এসব কথা বলেন।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ১৯৪১ সালে অ্যাডলফ হিটলার সোভিয়েত ইউনিয়নে আক্রমণ চালিয়েছিল। নাৎসি জার্মানিকে ৯ মে হারিয়েছিল সোভিয়েত ইউনিয়ন। এ তারিখটিকে রাশিয়া বিজয় দিবস হিসেবে পালন করে।

পুতিন বলেন, ‘সব লড়াই আমাদের মাতৃভূমির ভাগ্য নির্ধারণ করেছে, তা সব সময়ই জাতীয় ও পবিত্র হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। আমাদের স্বদেশের বিরুদ্ধে আবারও সত্যিকারের যুদ্ধ শুরু হয়েছে।’

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়ন যেভাবে নাৎসি জার্মানিকে পরাজিত করেছে, তা ইউক্রেন ভুলে গেছে বলে উল্লেখ করেন পুতিন। তিনি দেশের ভবিষ্যতের স্বার্থে ইউক্রেনে যুদ্ধে অংশ নেওয়া সেনাদের ‘হিরো’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এই হিরোদের সমর্থনে পুরো দেশ শোভাযাত্রা করছে। রাষ্ট্রের প্রতিটি মানুষ আপনাদের সাহায্য করতে প্রস্তুত। তাঁরা আপনাদের জন্য প্রার্থনা করছে।’

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়ন ২ কোটি ৭০ লাখ মানুষ হারিয়েছে। তাঁদের মধ্যে লাখো মানুষ ইউক্রেনেরও ছিল। কিন্তু অবশেষে পরাজিত নাৎসি বাহিনীকে বার্লিনে ফিরে যেতে হয়েছে।

ইউক্রেন যুদ্ধে ৩ লাখ ৫৪ হাজার রুশ ও ইউক্রেনীয় সেনা হতাহত হয়েছে। ১৫ মাস ধরে এ যুদ্ধ চলছে। অনলাইনে প্রকাশিত কথিত এক মার্কিন নথির তথ্যমতে, ২০২৩ সালের পরও এ যুদ্ধ চলতে পারে।

লেখকের পরিচিতি

জনপ্রিয় সংবাদ

রোড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে নাঙ্গলকোটে বিএনপির গনমিছিল ও সমাবেশ

রাশিয়ার বিজয়ের মধ্য দিয়ে এ যুদ্ধের শেষ হবে: পুতিন

আপডেট সময় : ১১:৪৯:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইউক্রেন বিষয়ে রুশরা পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে এক ‘পবিত্র’ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এই লড়াইয়ে রুশরা ঐক্যবদ্ধ। বিজয়ের মধ্য দিয়ে এ যুদ্ধের শেষ হবে। তিনি অভিযোগ করেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নাৎসিদের বিরুদ্ধে সোভিয়েতের বিজয়কে ভুলে গেছে।

আজ মঙ্গলবার রেড স্কয়ারে এই বিজয় দিবসের প্যারেডে জড়ো হওয়া সেনাদের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ৭০ বছর বয়সী পুতিন এসব কথা বলেন।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ১৯৪১ সালে অ্যাডলফ হিটলার সোভিয়েত ইউনিয়নে আক্রমণ চালিয়েছিল। নাৎসি জার্মানিকে ৯ মে হারিয়েছিল সোভিয়েত ইউনিয়ন। এ তারিখটিকে রাশিয়া বিজয় দিবস হিসেবে পালন করে।

পুতিন বলেন, ‘সব লড়াই আমাদের মাতৃভূমির ভাগ্য নির্ধারণ করেছে, তা সব সময়ই জাতীয় ও পবিত্র হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। আমাদের স্বদেশের বিরুদ্ধে আবারও সত্যিকারের যুদ্ধ শুরু হয়েছে।’

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়ন যেভাবে নাৎসি জার্মানিকে পরাজিত করেছে, তা ইউক্রেন ভুলে গেছে বলে উল্লেখ করেন পুতিন। তিনি দেশের ভবিষ্যতের স্বার্থে ইউক্রেনে যুদ্ধে অংশ নেওয়া সেনাদের ‘হিরো’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এই হিরোদের সমর্থনে পুরো দেশ শোভাযাত্রা করছে। রাষ্ট্রের প্রতিটি মানুষ আপনাদের সাহায্য করতে প্রস্তুত। তাঁরা আপনাদের জন্য প্রার্থনা করছে।’

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়ন ২ কোটি ৭০ লাখ মানুষ হারিয়েছে। তাঁদের মধ্যে লাখো মানুষ ইউক্রেনেরও ছিল। কিন্তু অবশেষে পরাজিত নাৎসি বাহিনীকে বার্লিনে ফিরে যেতে হয়েছে।

ইউক্রেন যুদ্ধে ৩ লাখ ৫৪ হাজার রুশ ও ইউক্রেনীয় সেনা হতাহত হয়েছে। ১৫ মাস ধরে এ যুদ্ধ চলছে। অনলাইনে প্রকাশিত কথিত এক মার্কিন নথির তথ্যমতে, ২০২৩ সালের পরও এ যুদ্ধ চলতে পারে।